মাদারীপুর সদরের মানব পাচারের  মাফিয়া ডন দেলোয়ার সর্দার, নামই এখন আতঙ্ক

আগের সংবাদ

সাভারে কানুনগো জিয়ার রাম রাজত্ব 

পরের সংবাদ

খাদ্যে ভেজালকারীদের কঠোর শাস্তিসহ ভেজাল খাদ্য বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশিত: জুন ২৮, ২০২৪ , ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জুন ২৮, ২০২৪ , ১২:৪৩ পূর্বাহ্ণ

সাভার প্রতিনিধিঃ

খাদ্যে ভেজাল প্রয়োগ বন্ধের দাবিতে সাভারে মানববন্ধন কর্মসূচী ও আলোচনাসভা করেছে বেসরকারি উন্নয়নমূলক সংস্থা কারিতাস। এসময় ভেজাল বিরোধী বিভিন্ন ধরনের শ্লোগান লেখা ফেস্টুন, ব্যানার ও ক্যাপ পরিধান করে মানববন্ধন কর্মসূচীতে অংশ গ্রহন করে কিশোর কিশোরী, ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক, ব্যবসায়ী, কারিতাস উদ্যম প্রকল্পর নেটওয়ার্ক ফোরাম এর সদস্যবৃন্দ, বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সদস্যসহ স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ। বুধবার দুপুরে সংস্থাটির উদ্যম প্রকল্পের উদ্যোগে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভার বাসস্ট্যান্ড এলাকার রাজালাখ ফার্মের সামনে খ্যাদ্যে ভেজাল প্রয়োগ বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়।

আয়োজিত মানববন্ধন থেকে বক্তারা বলেন, খাদ্যে ভেজাল দেয় যারা, জনগনের শত্রু তারা, খাদ্যে ভেজাল প্রয়োগকারীরা কখনো কারো বন্ধু হতে পারেনা। সুস্থ্য জীবন যাপনের লক্ষ্যে ভেজালমুক্ত খাদ্যের বিকল্প নাই। ভেজাল খাদ্য খেয়ে শিশু থেকে শুরু করে সকল বয়সী মানুষ নানা ধরনের অসুস্থতায় ভুগছে। ভেজাল খাদ্য প্রতিরোধে সরকারের পাশাপাশি পরিবার এবং সামাজিক ভাবে প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলার জন্য আহবান জানান।

মানববন্ধন শেষে কারিতাস উদ্যম প্রকল্প সাভার কার্যালয়ে খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধে করণীয় শীর্ষক নেটওর্য়াক ফোরামে বক্তারা বলেন, একদিকে খাদ্যদ্রব্যের মূল্য উর্ধগতি এবং অন্যদিক খাদ্যে ভেজালের কারনে মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছে। শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধ সহ সকল বয়সের মানুষ রেহাই পাচ্ছে না ভেজাল খাদ্যের ছোবল থেকে। খাদ্যে ভেজাল গোটা জাতিকে নীরবে মৃত্যুর দিকে নিয়ে যাচ্ছে। এজন্য প্রশাসনকে নৈতিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে, ব্যবসায়ীদের লোভের মাত্রা কমাতে হবে। সব শ্রেণীর মানুষের লোভ ত্যাগ এবং ব্যবসায়ীদের ভালো মানসিকতাই পারে খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধ করতে। বক্তারা খাদ্যে ভেজাল বন্ধের দাবিতে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

বক্তারা আরও বলেন, ভেজাল শব্দটাই নেতিবাচক। তা যদি খাদ্যের বেলায় হয়, তাহলে ভীতির সঞ্চার তৈরী হয়। তাই ভেজাল খাদ্য প্রতিরোধে সরকারকে আরো কঠিন অবস্থানে যেতে হবে। ভেজাল খাদ্য তৈরীতে সম্পৃক্তকারীদের কোনক্রমেই ছাড় দেওয়া যাবে না। ভেজাল রোধে দরকার ভোক্তা অধিকার ও দায়িত্ব সম্পর্কে জনসচেতনতা, প্রচার মাধ্যমের দায়িত্বশীলতা, প্রতারণামুলক বিজ্ঞাপন বন্ধ করা। উৎপাদন থেকে বিপণন পর্যন্ত সব ধাপে নজরদারি, ভেজালবিরোধী আইনের সঠিক প্রয়োগের মাধ্যমে খাদ্যে ভেজালকারীদের কঠোর শাস্তি নিশ্চিতের দাবিসহ ভেজাল খাদ্য বন্ধের দাবিতে সর্বস্তরে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলার আহবান জানান।

আয়োজিত মানববন্ধন ও খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধে করণীয় শীর্ষক নেটওর্য়াক ফোরামে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাভার উজেলার সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোকেয়া হক কারিতাস উদ্যম প্রকল্প ইনচার্জ ফরিদ আহাম্মদ খান, সুমন জন রোজারিও, সমাজ সেবক মনির হোসেন, অব্দুর রাজ্জাক, কামরুল হাসান, আবুল কালাম আজাদ, জান্নাতুল ইসলাম ফেরদৌসী প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, রুপান্তর প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়