৩০০ কোটি টাকায় এমপি মনোনয়নের লোভ দেখাতেন হানিফ

আগের সংবাদ

বিএনপির মহাসমাবেশ ২৮ অক্টোবর

পরের সংবাদ

গাজার হাসপাতালে বোমাহামলা, হতভম্ব জাতিসংঘ

প্রকাশিত: অক্টোবর ১৮, ২০২৩ , ১০:৫৮ পূর্বাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১৮, ২০২৩ , ১০:৫৮ পূর্বাহ্ণ

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার ‘আল-আহলিল আরব’ নামে একটি হাসপাতালে ইসরায়েলি বাহিনীর বোমাহামলায় পাঁচ শতাধিক বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ।

মঙ্গলবার (১৭ অক্টোবর) এক্সে (টুইটার) জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস জানিয়েছেন, গাজায় হাসপাতালে হামলা চালিয়ে শত শত বেসামরিক নাগরিককে হত্যার ঘটনায় তিনি ‘হতভম্ব’। এ হামলার কঠোর নিন্দা জানিয়ে হতাহত ব্যক্তিদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি।

এক্স পোস্টে আন্তোনিও গুতেরেস আরও বলেছেন, আন্তর্জাতিক আইনে সব হাসপাতাল ও চিকিৎসাকর্মীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করার কথা বলা আছে।

এর আগে, গাজার একটি হাসপাতালে মঙ্গলবার (১৭ অক্টোবর) ইসরায়েলি বাহিনীর ভয়াবহ হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। ওই এক হামলায় একসঙ্গে পাঁচ শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে। খবর আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আল জাজিরা ও বিবিসির।

কাতারভিত্তিক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে, আল-আহলিল আরব নামের ওই হাসপাতালটিতে অসংখ্য আহত ও অসুস্থ মানুষ চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। এছাড়া দখলদার ইসরায়েলিদের হামলা থেকে বাঁচতেও অনেকে ‘নিরাপদ আশ্রয়’ ভেবে হাসপাতালটিতে অবস্থান নিয়েছিলেন।

হাসপাতালের ওপর এ হামলাকে ‘যুদ্ধাপরাধ’ হিসেবে অভিহিত করেছে গাজার হামাস নিয়ন্ত্রিত সরকার। এক বিবৃতিতে গাজার সরকার বলেছে, হাসপাতালটিতে কয়েকশ’ আহত ও অসুস্থ মানুষ ছিলেন। এ ছাড়া জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত মানুষও এখানে ছিলেন।

প্রসঙ্গত, গত ৭ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া ইসরায়েলি বিমানবাহিনীর নির্বিচার বিমান হামলায় মঙ্গলবার (১৭ অক্টোবর) পর্যন্ত ৩ হাজার ফিলিস্তিনির মৃত্যুর তথ্য জানিয়েছিল হামাস। এরমধ্যেই হাসপাতালে চালানো হলো ভয়াবহ হামলা।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, হাসপাতালটির একটি হলরুমে কয়েকশ বাস্তুচ্যুত মানুষ আশ্রয় নিয়েছিলেন। মূলত বিমান হামলা থেকে রক্ষা পেতেই হাসপাতালে আশ্রয় নিয়েছিলেন তারা। তবে সেখানেও চালানো হয়েছে নৃশংসতা।

তবে ভয়াবহ এই হামলার দায় স্বীকার করেনি ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ)। তারা বলেছে, হামলার বিষয়ে খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে, হামলার পর সেখানে বিপর্যয়কর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। আল জাজিরার টিভি চ্যানেলে প্রকাশিত ফুটেছে দেখা গেছে, হাসপাতালের সব জায়গায় মানুষের রক্ত পড়ে আছে। যেগুলো তখনো শুকায়নি। হাসপাতালে এ হামলা ইসরালাইলি বর্বরতা বলে অভিহিত করেছেন আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, রুপান্তর প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়