শরীয়তপুর স্টেডিয়ামে খেলা বন্ধ রেখে মেলার আয়োজন, মাঠ নষ্টের অভিযোগ 

আগের সংবাদ

চুয়াডাঙ্গায় তাপমাত্রা বাড়লেও মাঝারী শৈতপ্রবাহে দুর্ভোগ কমেনি

পরের সংবাদ

চা বিক্রি করে লাখ টাকা আয়

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৪, ২০২৪ , ৫:৫৫ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২৪, ২০২৪ , ৫:৫৫ পূর্বাহ্ণ

সুন্দর পরিপাটি করে লাল সবুজ রঙের বাশের বেড়া দিয়ে সাজানো ছোট্ট চায়ের দোকান। দূর-দূরান্ত থেকে চা প্রেমীরা এখানে ছুটে আসেন এক কাপ চায়ের স্বাদ নিতে। যে যার পছন্দমতো চায়ের অর্ডার দেন। মাদারীপুর সদর উপজেলার পাঁচখোলা ইউনিয়নের পাচখোলা এলাকার পাশে দেখা মেলে জমজমাট এই ‘চায়ের বাড়ি’ দোকানের।

মঙ্গলবার (২৩ জানুয়ারি) দোকানে গিয়ে দেখা যায় দোকানের মালিক শাহরিয়ার মনির (৪০) বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন। তাকে সহযোগিতা করছেন তার স্ত্রী। উপজেলার ডা. মোজাম্মেল হক খান সড়কের কোলঘেষে গড়ে ওঠা প্রবীণ নিবাস ও কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের পাশে অবস্থিত এ চায়ের দোকানে রয়েছে শতাধিক রকমের চায়ের আয়াজন। তবে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয় দুবাই চা।
বাহারি রকমের চা বানিয়ে মাসে বিক্রি হয় প্রায় দেড় লাখ টাকা। সেই লাভের টাকায় চলে নামে পরিচিত এই দোকানের মালিক একই এলাকার শাহরিয়ার মনির (৪০)।

দোকান মালিক শাহরিয়ার মনিরের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, দুপুরের পর থেকে চায়ের দোকানে বেচাকেনা শুরু হয়। দুবাই চা, সুলতান সুলেমান, ক্যারামেল, চাতলা, তেতুল, কমলা, আয়ুর্বেদিক রং চা, এনার্জি বুলেট চা, সাত লেয়ার চা, দই চা, কাজু বাদাম চাসহ আছে শতাধিক রকমের চা। দোকানটি ইতিমধ্যে জেলায় বেশ সুনাম অর্জন করেছে। শতাধিক বাহারি চা থাকলেও সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয় দুবাই চা। যার মূল্য প্রতি কাপ ৫০ টাকা। মনিরের সব ধরনের চা মাটির কাপ বা ছোট হাড়িতে করে পরিবেশ করা হয়। যা দেখতেও বেশ আকর্ষণীয়।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, রুপান্তর প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়