মুক্তির আগেই শাহরুখকে টপকে গেলেন রণবীর

আগের সংবাদ

জনগণের দাবির মুখে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছি, জনগণ যাকে ভোট দিবে সেই এমপি--  কোটচাঁদপুরে এমপি চঞ্চল 

পরের সংবাদ

চুয়াডাঙ্গা-১ আসনে হাজার হাজার আওয়ামী নেতাকর্মী ও সাধারণ ভোটারদের অনুরোধে স্বতন্ত্র এমপি প্রার্থী হলেন দিলীপ কুমার আগরওয়ালা

প্রকাশিত: নভেম্বর ৩০, ২০২৩ , ১১:০৪ পূর্বাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ৩০, ২০২৩ , ১১:০৪ পূর্বাহ্ণ

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চুয়াডাঙ্গা-১ আসনে নৌকার মনোনয়ন বঞ্চিত বাবু দিলীপ কুমার আগরওয়ালার পক্ষের হাজার হাজার আওয়ামী নেতাকর্মী ও সাধারণ ভোটারদের চাওয়া-পাওয়া ও অনুরোধে স্বতন্ত্র এমপি প্রার্থী হিসাবে নির্বাচন যুদ্ধে মাঠে নামছেন। সাধারণ মানুষের বাঁধভাঙা উল্লাস ও ভালবাসার কথা মাথায় রেখে চুয়াডাঙ্গা-১ আসনে স্বতন্ত্র এমপি প্রার্থী হলেন বাবু দিলীপ কুমার আগরওয়ালা।

 

চুয়াডাঙ্গা-১ আসন সহ চুয়াডাঙ্গা জেলার সকল শ্রেনী পেশার মানুষের সুখ-দুঃখের বন্ধু হিসাবে পরিচিত বাবু দিলীপ কুমার আগরওয়ালা তার মায়ের নামে প্রতিষ্ঠিত তারা দেবী ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে এলাকার অসহায় মানুষের ও গর্ভবতী মায়েদের জন্য ফ্রী এম্বুলেন্স সেবা প্রদান সহ অসহায় মানুষের বিভিন্ন ধরনের সাহায্য সহযোগিতা করে এলাকার মানুষের কাছে দানবীর হিসাবে পরিচিতি লাভ করেছেন। বাবু দিলীপ কুমার আগরওয়ালা দীর্ঘ ১৫/২০ বছর ধরে আওয়ামী লীগের একটি শক্তিশালী দুর্গ বা ঘাঁটি গড়ে তুলেছেন নিজ জেলা চুয়াডাঙ্গায়। চুয়াডাঙ্গা-১ আসনে আওয়ামীলীগের দলীয় নেতাকর্মী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের চাওয়া-পাওয়া ছিলো এবার তিনি নৌকা মার্কা নিয়ে নির্বাচন করলে রেকর্ড পরিমাণ ভোট পেয়ে বিজয়ী হবেন। কিন্তু দলীয় হাইকমান্ড তাকে নৌকার মনোনয়ন বঞ্চিত করায় দলীয় নেতাকর্মী থেকে শুরু করে সাধারণ ভোটারা স্বতন্ত্র এমপি প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে দাড়াতে বাধ্য করান। এতো মানুষের ভালবাসাকে তিনি মাথায় রেখে স্বতন্ত্র এমপি প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনী মাঠে ঝাপিয়ে পড়লেন। এলাকার সুবিধাবঞ্চিত মানুষের দাবী এবারের নির্বাচনে বাবু দিলীপ কুমার আগরওয়ালা বিপুল ভোটে জয় লাভ করবেন।

 

আওয়ামী লীগের পোড়খাওয়া নেতাকর্মীদের একটি অংশের দাবী বাবু দিলীপ কুমার আগরওয়ালার নির্বাচনী প্রচার প্রচারণায় কোন বাঁধা সৃষ্টি না হলে বিপুল ভোটে জয়ী হবেন।

এবিষয়ে অনেকেই বলেছেন, চুয়াডাঙ্গা জেলার আওয়ামী লীগের রাজনীতি অনেকটা পরিবারতন্ত্রে রূপ নিয়েছে, দলীয় পোড়খাওয়া নেতাকর্মীদের কোন মূল্যায়ন হয়নি বিগত ১৫ বছর। দলীয় নেতাকর্মীরা যখন একের পর এক নির্যাতিত ও পদ বঞ্চিত হয়ে ঘরে বসে ছিলো, বাবু দিলীপ কুমার আগরওয়ালা অভিমানী নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি যেয়ে এক কাতারে নিয়ে এসে আওয়ামী লীগের একটি শক্তিশালী দুর্গ গড়ে তুলেছেন। অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। জেলা জুড়ে মানুষ যখন বাবু দিলীপ কুমার আগরওয়ালাকে নৌকার মাঝি বানাতে স্বপ্ন দেখলেন তখন মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে ঘরে ফিরলেন। তাই হাজার হাজার নেতাকর্মী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ রাস্তায় নেমে মিছিল শুরু করলেন বাবু দিলীপ কুমার আগরওয়ালা ছাড়া কোন বিকল্প নেই, বাবু দিলীপ কুমার আগরওয়ালাকে আমরা চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের এমপি হিসাবে দেখতে চাই। চুয়াডাঙ্গা-১ আসন হবে বাবু দিলীপ কুমার আগরওয়ালার ঘাঁটি।

 

অপরদিকে ৩০ নভেম্বর বৃহস্পতিবার বিকালে হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে চুয়াডাঙ্গা-১ আসনে স্বতন্ত্র এমপি প্রার্থী হিসাবে বাবু দিলীপ কুমার আগরওয়ালা মনোনয়ন জমা দেন। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশাদুল হক বিশ্বাস ও সাবেক পৌর মেয়র ওবায়দুল রহমান চৌধুরী জিপু’র পূর্ণ সমর্থন নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে বিপুল ভোটে জয়ী হবেন বলে সকলে আশাবাদী।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, রুপান্তর প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়