বেনাপোলে স্বামীর ঋণের দায়ে সর্বশান্ত হয়ে ৬ মাসের কন্যা সন্তানকে রেখে স্বামী ও স্ত্রীর আত্মহত্যা

আগের সংবাদ

বিজয় দিবসে জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

পরের সংবাদ

জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের শ্রদ্ধা জানাতে প্রস্তুত জাতীয় স্মৃতিসৌধ সাভার প্রতিনিধি:

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১৫, ২০২৩ , ১:০৪ অপরাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ১৫, ২০২৩ , ১:০৪ অপরাহ্ণ

দিন পেরোলেই মহান বিজয় দিবস। জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনে প্রস্তুত সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধ। দিবসটি ঘিরে ইতিমধ্যেই সৌধ চত্বরের সৌন্দর্য ও পবিত্রতা রক্ষায় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা, সংস্কার ও রং-তুলির কাজ শেষ হয়েছে। শেষ হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

জোরদারে সিসি টিভি ক্যামেরা বসানোর কাজ। এছাড়াও ঢাকা জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে নিরাপত্তার প্রস্তুতি ও নবম পদাতিক ডিভিশনের তত্ত্বাবধানে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে দেওয়া তিন বাহিনীর গার্ড অব অনারের কসরত শেষ হয়েছে।

গণপূর্ত বিভাগের সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধের উপসহকারী প্রকৌশলী মো. মিজানুর রহমান জানান, মহান মুক্তিযুদ্ধে বিজয় ছিনিয়ে আনা লাখো শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে, সৌধ চত্বরের সৌন্দর্য বর্ধনে ধুয়ে মুছে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন, সংস্কার ও রং তুলির আঁচলে রাঙ্গানোর কাজটি করা হয়েছে পরম ভালোবাসা নিয়ে। ফুল বাগানে স্থান পেয়েছে হরেক রকমের এমন বাহারি ফুল গাছ। ল্যাম্প পোস্ট, ঝাড়বাতি, ঝর্ণাধারা, মুক্ত মঞ্চ, অভ্যর্থনা কেন্দ্র সর্বত্রই সৌন্দর্য বর্ধন করা হয়েছে। ডিসেম্বর ৪ তারিখ থেকে জাতির স্মৃতিসৌধ সর্বসাধারণের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে, ১৬ ডিসেম্বর প্রত্যুষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য খুলে দেয়া হবে জাতীয় স্মৃতিসৌধ। স্মৃতিসৌধর নিরাপত্তার কাজটি ১২ ডিসেম্বর থেকে এসএসএফ তদারকি করছেন। মাসব্যাপী ধোয়া-মোছা ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতাসহ সৌন্দর্য বর্ধনের সকল কাজ শেষে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধ প্রস্তুত রয়েছে বীর শহীদদের শ্রদ্ধা নিবেদনে।

ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মো. আসাদুজ্জামান জানান, নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারে সিসিটিভি স্থাপন ও ওয়াচ টাওয়ারের বসানোসহ সকল কাজ শেষ করেছেন ঢাকা জেলা পুলিশ। চার স্তর বিশিষ্ট নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। বিজয় দিবসের স্মৃতিসৌধ আগত সকল দেশ প্রেমিক দর্শনার্থীদের আসা-যাওয়ায় যেন দুর্ভোগ পোহাতে না হয় সেজন্য স্মৃতিসৌধের ভিতর এবং বাহিরে আমাদের সতর্ক নজরদারি থাকবে। এছাড়া ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক ও নবীনগর-চন্দ্র মহাসড়কের যানবাহন গুলো ১৬ ডিসেম্বর ভোর ৪ টার পর নবীনগর সড়ক দিয়ে চলাচল বন্ধ রাখবার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এ সময় তাদেরকে অন্য রাস্তা ব্যবহার করার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে যথারীতি সড়কটি খুলে দেয়া হবে।

জাতীয় স্মৃতিসৌধ এবং স্মৃতিসৌধের আশেপাশের এলাকায় বিশেষ নজরদারি রাখা হয়েছে। কোনো পক্ষ থেকে কোন রকম থ্রেট বা হুমকি নেই জানিয়ে তিনি বলেন, শান্তিপূর্ণ পরিবেশেই ১৬ ডিসেম্বর বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর কাজটি সম্পূর্ণ করবার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

এদিকে জাতীয় স্মৃতিসৌধে বিজয় দিবস উদযাপনের প্রস্তুতি দেখতে এসে সন্তোষ প্রকাশ করেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান।

১৬ ডিসেম্বর সকালে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধ।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, রুপান্তর প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়