সংসদ নির্বাচনে মোট ১৮৯৬ প্রার্থীঃ চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের দিলীপ কুমার শীর্ষ ৬নং ধনীঃ হাজারের মধ্যেও ধনী নেই চুয়াডাঙ্গার কোন প্রার্থী

আগের সংবাদ

দৌলতপুরে চোরকে পাকড়াও করে স্বর্ণালংকার, নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন উদ্ধার

পরের সংবাদ

তারাগঞ্জ উপজেলা জাসদ স্বতন্ত্র প্রার্থীকে সমর্থন করায় মৌন সমলোচনার ঝড়

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২৭, ২০২৩ , ৮:০৬ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ২৭, ২০২৩ , ৮:০৬ পূর্বাহ্ণ
আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সঙ্গে জোটবদ্ধ হয়ে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) ভোটে অংশগ্রহণ করলেও রংপুর তারাগঞ্জ আসনে আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী কৃষিবিদ বিশ্বনাথ সরকার বিটুকে সমর্থন করেছে  শরীক দল জাসদ। এঘটনায় রংপুর কেন্দ্রীক মৌণ সমলোচনার সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়াও তৃণমূল নেতাকর্মীরা নিয়মতান্ত্রিক রাজনীতির পরিপন্থীমুলক এই কাজের জন্য দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা চান সেন্ট্রাল কমিটির নিকট।
বিভিন্ন তথ্য সূত্রে জানাগেছে- আসন্ন দাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রংপুর – ২ আসনে ১৪ দলের সর্মথিত প্রার্থী আহসানুল হক  চৌধুরী ডিউক (এমপি) কে যদিও স্থানীয়ভাবে শরীক দলগুলো তাকে সমর্থন করলেও তারাগঞ্জ উপজেলা জাসদ এর কার্যকরী পরষদের লোকজন সমর্থন দিয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থী কৃষিবিদ বিশ্বনাথ সরকার বিটুকে।
সেই সাথে তারাগঞ্জ উপজেলা জাসদ এর দপ্তর সম্পাদক হরলাল রায় এর নিজস্ব ফেসবুক আইডি ( সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে) গত ২৩ ডিসেম্বর বিকেল ৩ টায় তারাগঞ্জ জাসদ সভাপতি কুমারেশ রায়ের সভাপতিত্বে সাধারন সম্পাদক রশিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হওয়া স্বতন্ত্র প্রার্থীকে নিয়ে আলোচনার ছবি ও বার্তা পোস্ট করে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
এবং জাসদের দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নিয়ে এই আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী (ট্রাক মার্কা)কৃষিবিদ বিশ্বনাথ সরকার বিটুকে সমর্থন প্রদান করাসহ তারাগঞ্জ উপজেলা জাসদ বিশ্বনাথ সরকার বিটুর (ট্রাক মার্কার) পক্ষে নির্বাচনী মাঠে থাকবে এবং পরিবর্তন ও বিজয় সুনিশ্চিতের লক্ষ্যে কাজ করে যাবে বলেও উল্লেখ করেছেন তার নিজস্ব ফেসবুক আইডিতে।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ধরনের দলের অসঙ্গতি প্রচারনা  রংপুরে জাসদ নেতাকর্মীদের দৃষ্টিগোচর হয়, এতে স্থানীয় নেতা-কর্মীদের মাঝে অন্তরীণ মৌন সমালোচনার ঝড় বইছে চরমে।
স্বতন্ত্র প্রার্থীকে সমর্থন করার বিষয়টি জানতে চাইলে তারাগঞ্জ উপজেলা জাসদ এর দপ্তর সম্পাদক হরলাল রায় বলেন, এই সিদ্ধান্ত দলীয় নির্দেশে না, আমরা তারাগঞ্জ উপজেলা জাসদ স্থানীয়ভাবে স্বতন্ত্র প্রার্থীকে সমর্থন করছি।
তবে তারাগঞ্জ উপজেলা জাসদ স্বতন্ত্র প্রার্থী বিটুকে সমর্থন করার বিষয়টি অনেকেই দেখছেন বাঁকা চোখে। সেই বিষয়ে বদরগঞ্জ উপজেলা জাসদ এর সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম বলেন,২০০৪ সালে দেশের সার্বিক বিষয়কে কেন্দ্র করে আমরা চৌদ্দ দল শরীক হই। সেই  থেকে দলের নীতি নির্ধারকদের নির্দেশনা অনুসারে আমরা কাজ করে আসছি। এবং বদরগঞ্জ আসনে আমরা সমর্থিত প্রার্থীর হয়ে কাজ করছি, কিন্তু পার্শ্ববর্তী তারাগন্জ উপজেলা অত্র আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থীকে সমর্থনের বিষয়টি দলের পরিপন্থী।
তারাগঞ্জ জাসদ  এর হটকরি এই সিদ্ধান্ত কেন নিলেন, সে বিষয়ে মহানগর জাসদ সদস্য শফিয়ার রহমান বলেন, এই ধরনের আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত জাসদ রাজনীতি পরিপন্থী।
দলের পরিপন্থী কাজ করার বিষয়ে সেন্ট্রাল কমিটিকে এ বিষয়ে কোন অভিযোগ দিয়েছেন কি না জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বেশ কয়েকজন নেতা মৌন প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, এখন পর্যন্ত সেন্ট্রাল কমিটিতে বিষয়টি অবগত করানো হয়নি। তবে নির্বাচনের পর যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন তারা।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে রংপুর জেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক, কেন্দ্রীয় জাসদের সাংগঠনিক সম্পাদক  তারাগঞ্জ উপজেলা জাসদের সভাপতি কুমারেশ রায় দলের নীতি নির্ধারকদের নির্দেশনাকে উপেক্ষা করে তার সর্মথনের বিষয়টি এড়িয়ে যান তিনি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, রুপান্তর প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়