থানা থেকে ৬০ বোতল মদ উধাও, ‘গ্রেপ্তার’ অভিযুক্ত ইঁদুর!

আগের সংবাদ

যত টাকায় বিক্রি হলো ২৮ কেজির বাগাড়

পরের সংবাদ

বগুড়ায় জামায়াতের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, আহত ১০

প্রকাশিত: নভেম্বর ৮, ২০২৩ , ৭:২২ পূর্বাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ৮, ২০২৩ , ৭:২৪ পূর্বাহ্ণ

তৃতীয় দফায় ডাকা ৪৮ ঘণ্টার অবরোধের প্রথম দিনে বগুড়ায় পুলিশের সঙ্গে জামায়াতে ইসলামীর নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়েছে।

বুধবার (৮ অক্টোবর) সকালে দ্বিতীয় বাইপাস সড়কের সাবগ্রাম ও বগুড়া-রংপুর মহাসড়কের বাঘোপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জামায়েতে ইসলামীর দাবি, পুলিশের রাবার বুলেট এবং টিয়ারশেল নিক্ষেপে তাদের অন্তত ১০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

অপরদিকে পুলিশ বলছে, তাদের ওপর আক্রমণ হওয়ায় যথাযথ নিয়ম মেনে আন্দলনকারীদের প্রতিহত করা হয়েছে।

জানা গেছে, বুধবার সকাল আনুমানিক ৭টার দিকে জামায়াতে ইসলামী বগুড়া শহর শাখার আমির অধ্যক্ষ আবিদুর রহমান সোহেলের নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে বগুড়া দ্বিতীয় বাইপাস মহাসড়কের সাবগ্রাম এলাকায় মহাসড়ক অবরোধের চেষ্টা করে। এসময় পুলিশ তাদের সরে যেতে বলে। একপর্যায়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে জামায়াতের নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া শুরু হয়। এসময় একাধিক ককটেল বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ রাবার বুলেট ও টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে।

একই সময়ে বগুড়া-রংপুর মহাসড়কের বাঘোপাড়া এলাকায় জামায়াতের নেতাকর্মীরা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিল শেষে সমাবেশ চলাকালে পুলিশের সঙ্গে দলটির নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়।

জামায়াতে ইসলামী বগুড়া শহর শাখার আমির অধ্যক্ষ আবিদুর রহমান সোহেল বলেন, ‘আমাদের দশজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। শান্তিপূর্ণ মিছিলে এমন ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।’

জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার স্নিগ্ধ আখতার সাংবাদিকদের বলেন, ‘জামায়েতের নেতাকর্মীরা মহাসড়ক অবরোধ করেছিল। পুলিশ তাদের সরে যেতে বললে তারা পুলিশের উপর হামলা ও ককটেল নিক্ষেপ করে। পরে পুলিশ যথাযথ নিয়ম মেনে তাদের প্রতিহত করেছে।’

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, রুপান্তর প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়