রশিদকে টপকে সেরা বোলার এখন রবি বিষ্ণুই

আগের সংবাদ

নওগাঁয় ট্রাকে আগুন

পরের সংবাদ

১১১ বছরে প্রথমবার পেলে-নেইমারের ক্লাবের অবনমন

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৭, ২০২৩ , ৯:০৫ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ৭, ২০২৩ , ৯:০৫ পূর্বাহ্ণ

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলের নাম বলতেই সবার আগে মাথায় আসে ফুটবলের কথা। আর দেশটির ফুটবলের শেষ কথা তো ‘ফুটবল সম্রাট’ পেলেই। সেই পেলে ক্যারিয়ারের প্রায় পুরোটাই কাটিয়েছিলেন ব্রাজিলিয়ান ক্লাব সান্তোসে। শুধু পেলেই নন, এই প্রজন্মের সেরা খেলোয়াড় নেইমারও উঠে এসেছেন সান্তোস থেকেই। ব্রাজিলের ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরা ক্লাব সান্তোস এবার হারাল সম্মান।

ব্রাজিলের শীর্ষ লিগের দল হিসেবে একটা বিশেষ সম্মান আছে সান্তোসের। এটা যে ‘ও রেই’ বা ফুটবল সম্রাটের ক্লাব। আরও একটা জায়গায় অনন্য সান্তোস। সাও পাওলো ও ফ্লামেঙ্গোর পাশাপাশি সান্তোসও কখনোই ব্রাজিলের শীর্ষ ফুটবল লিগ সিরি আ’ থেকে অবনমিত হয়নি। তবে এবার সেই সম্মান হারিয়েছে সান্তোস। সদ্য শেষ হওয়া ব্রাজিলিয়ান সিরি আ’র থেকে সিরি বি’তে অবনমন ঘটেছে সান্তোসের।

 

ক্লাবটির ১১১ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম শীর্ষ লিগ থেকে অবনমন ঘটল। বুধবার (৬ ডিসেম্বর) ফাইনাল রাউন্ডের খেলায় ফোর্তালেজার বিপক্ষে ঘরের মাঠে ২-১ ব্যবধানে হেরে যাওয়ায় অবনমন নিশ্চিত হয় সান্তোসের। চলতি মৌসুমে শুরু থেকেই ধুঁকতে থাকা সান্তোস শেষ পাঁচ ম্যাচে জয়হীন ৩৮ লিগ ম্যাচে ১১ ম্যাচে জয় পেলেও ১৭ বার হারের মুখ দেখতে হয়েছে। সেইসঙ্গে ছিল ১০ ড্র।

 

শেষ দিনে অবনমন এড়াতে অন্তত ড্র করলেই হতো তাদের। আর হেরে গেলে তাকিয়ে থাকতে হতো বাহিয়ার দিকে। ৩৭তম ম্যাচডে শেষে সান্তোসের পয়েন্ট ছিল ৪৩ আর বাহিয়ার ছিল ৪১। অন্যদিকে বাহিয়া ৪-১ গোলের বড় জয় পেয়েছে অ্যাতলেটিকো মিনেইরোর বিপক্ষে। ৩৮তম দিনে এসে তাই সান্তোসের পয়েন্ট আটকে রইলো ৪৩এ। আর বাহিয়া ৪৪ পয়েন্ট নিয়ে চলে যায় রেলিগেশন জোনের বাইরে।

 

ব্রাজিলের শীর্ষ লিগের সেরা চার দল জায়গা পায় কোপা লিবার্তোদেরেসে। এবারের লীগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে পালমেইরাস। সেরা চারে পালমেইরাস ছাড়া জায়গা পেয়েছে গ্রেমিও, অ্যাটলেটিকো মিনেইরো এবং ফ্ল্যামেঙ্গো। ২০ দলের লিগে সান্তোস মৌসুম শেষ করেছে ১৭তম স্থানে থেকে। নিয়ম অনুযায়ী শেষ চারটি স্থানে থাকা দল নিচের লিগ নেমে যায়। সান্তোস ছাড়াও আমেরিকা মিনেইরো, করিতিবা এবং গোইয়াসের অবনমন আগেই নিশ্চিত হয়েছিল।

 

ফুটবল সম্রাটের হাত ধরে সান্তোস বিশ্বব্যাপী বিখ্যাত হয়ে ওঠে। ১৯৫৯-৬০ এর দশকে স্বর্ণালী সময় পার করা সান্তোস বিশ্বের সেরা ক্লাবগুলোর একটিতে পরিণত হয়। এ সময় ১০ বার রাজ্য এবং ছয়বার ব্রাজিলিয়ান লিগের শিরোপা জেতে সান্তোস।

 

দক্ষিণ আমেরিকার চ্যাম্পিয়নস লিগ খ্যাত কোপা লিবের্তাদোরেসেও সাফল্য পায় পেলের সান্তোস। ১৯৬২ ও ১৯৬৩ সালে কোপা লিবের্তাদোরেসে চ্যাম্পিয়ন হয় তারা। একই সময়ে ইউরোপ ও দক্ষিণ আমেরিকার সেরা ক্লাবদের নিয়ে আয়োজিত ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপের শিরোপাও জিতে নেয় তারা।

 

সান্তোসের সবচেয়ে বিখ্যাত সন্তান পেলে হলেও ব্রাজিলের ফুটবলের আরও অসংখ্য পরিচিত মুখ খেলেছেন এই ক্লাবের হয়ে। এই ক্লাব থেকেই রবিনহো, নেইমার বা হালের রিয়াল মাদ্রিদের তারকা রদ্রিগো উঠে এসেছেন।

 

এদিকে, ‘সিরি বি’তে অবনমন নিশ্চিত হওয়া যেন কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছে না সান্তোসের সমর্থক রা। ম্যাচ শেষে ক্ষোভে বাইরের রাস্তায় বেশ কিছু গাড়িতে আগুন দেন সমর্থকেরা। ক্লাবের ১১১ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো অবনমনে বুকের ভেতর জ্বলতে থাকা আগুনটা সমর্থকেরা নেভাতে পারেননি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, রুপান্তর প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়